মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

গণপূর্ত অধিদপ্তর

গণপূর্ত অধিদপ্তর গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশের প্রধান সরকারী পূর্ত নির্মাণ সংস্থা। সরকারী ভবন ও স্থাপনা নির্মাণ কাজে গণপূর্ত অধিদপ্তর দুই শতকের অধিক সময় ধরে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। গণপূর্ত অধিদপ্তরের অভিজ্ঞ ও দক্ষ সিভিল, ইলেকট্রিক্যাল ও মেকানিক্যাল প্রকৌশলীগণ সরকারী বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নের সাথে জড়িত। সরকারী ভবন নির্মাণ ছাড়াও ভবন সমূহ রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বও গণপূর্ত অধিদপ্তরের উপর ন্যাস্ত রয়েছে।

গণপূর্ত চট্টগ্রাম জোন, চট্টগ্রাম গণপূর্ত অধিদপ্তরের চট্টগ্রামস্থ জোনাল অফিস, চট্টগ্রাম বিভাগের জেলা সমূহ এই অফিসের অন্তর্ভূক্ত। একজন অতিরিক্ত  প্রধান প্রকৌশলী এই দপ্তরের প্রধান। এই অফিসের আওতায় চারটি সার্কেল অফিস এবং সতেরটি বিভাগীয় অফিস রয়েছে।

 

                     গণপূর্ত অধিদপ্তর নিম্নে বর্ণিত সেবা প্রদান করে থাকেঃ

(ক) সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের অধীনস্থ ভবন নির্মাণ কাজ।

(খ) জাতীয় সংসদ ভবন, বঙ্গভবন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বাংলাদেশ সুগ্রীমকোর্ট, বাংলাদেশ সচিবালয়সহ কারাগার, মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালসমূহ, অগ্নি নির্বাপন কেন্দ্রসহ  দেশব্যাপী অধিকাংশ সরকারী অফিস ও প্রতিষ্ঠানসমূহের মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ।

(গ) দেশব্যাপী অধিকাংশ সরকারী আবাসিক ভবনসমূহ মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ।

(ঘ) জাতীয় স্মৃতিসৌধসহ বিভিন্ন স্মৃতিসৌধ নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ।

(ঙ) সরকারী পার্ক ও উদ্যানসমূহ রক্ষণাবেক্ষণ কাজ।

(চ) ধানমন্ডি আবাসিক এলাকা, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, পরিত্যাক্ত সম্পত্তি, খিলগাঁও পূর্ণবাসন এলাকাসহ দেশব্যাপী গণপূর্ত অধিদপ্তর এর আওতাধীন সরকারী জমি সম্পর্কিত প্রতিবেদন  প্রদান ইত্যাদি।

 

   গণপূর্ত অধিদপ্তরের সেবা কার্যক্রমের লক্ষ্য বা কর্মসূচীঃ

     

সেবার প্রকৃতি

 সেবা প্রদানের সময়সীমা

মন্তব্য

(ক) দরজা/জানালার কাঁচ পরিবর্তনসহ সঠিকভাবে খোলা ও বন্ধের ব্যবস্থা করণ

১-২ দিন

অভিযোগ প্রাপ্তির সংশ্লিষ্ট দপ্তর ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকে।

(খ) দরজা/জানালার বড় ধরণের মেরামত অথবা পরিবর্তন করণ

১-৭ দিন

কাজের প্রকৃতি এবং প্রয়োজনীয়তা হিসেবে গুরুত্ব দেয়া হয়।

(গ) পানির কল, পুশ সাওয়ার, কমোড/প্যান এর ফ্ল্যাশ পদ্ধতি সচল করাসহ টয়লেট পানি রোধক করণ

১-২ দিন

১-৩ মাসের মজুদ মালামাল থেকে পানি সরবরাহ/পয়ঃ ব্যবস্থা/ পানি নিরোধক জরুরী কাজ সম্পন্ন করা হয়।

(ঘ) ছাদের যথাযথ পানি নিস্কাশন ও পানির ট্যাংক এর ছিদ্র বন্ধসহ পানির অপচয় রোধকরণ

১-৩ দিন

-ঐ-

(ঙ) স্যানিটারী ও প্লাম্বিং ব্যবস্থা চালু রাখা যথাঃ প্যান,কমোড, বেসিন, পানির পাইপ, নিস্কাশন পাইপ,পানির মোটর মেরামত/ পরিবর্তন ইত্যাদি

১-৩ দিন

ষ্টকে বেসিন,প্যান বা মোটর ইত্যাদি মজুদ রেখে স্বল্পতম সময়ে প্রতিস্থাপন করা হয়।

(চ) বৈদ্যুতিক সুইচ,সার্কিটপ ব্রেকার চালু রাখা

১-৩ দিন

মজুদ থেকে বৈদ্যুতিক জরুরী মেরামত কাজ সম্পন্ন করা হয়।

(ছ) বৈদ্যুতিক ফ্যান মেরামত/পরিবতন

১-৭ দিন

বড় ধরনের মেরামত প্রয়োজন হলে ষ্টকে থাকলে অন্য ফ্যান দ্বারা প্রতিস্থাপনের চেষ্টা করা হয়।

(জ) স্বাভাবিক পূর্ত ও বৈদ্যুতিক কাজে রং সহ সার্বিক মেরামত।

(General Type Maintenance)

 

প্রতি ৩ বছর অন্তর সম্পাদন করা হয়।

 

    অভিযোগ প্রদানের ও তথ্য প্রাপ্তির পদ্ধতিঃ

যে কোন মেরামত বা রক্ষণাবেক্ষণ কাজের চাহিদা সর্বপ্রথমে সংশ্লিষ্ট উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী/উপ-সহকারী প্রকৌশলীর অফিসে রক্ষিত রেজিষ্টারে লিপিবদ্ধ করতে হয় এবং অভিযোগ লিপিবদ্ধ হওয়ার পরও  উল্লেখিত অফিসের মাধ্যমে প্রতিকার প্রাপ্তিতে ব্যর্থ হলে ধাপ অনুযায়ী যথাক্রমে সংশ্লিষ্ট নির্বাহী প্রকৌশলী, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এবং অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী দপ্তরে যোগাযোগ/অভিযোগ দাখিল করা হয়।

 

   সংশ্লিষ্ট মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযেগের ঠিকানা সর্বদা প্রস্ত্তত আছে (নিচের ছক মোতাবেক)ঃ

 

বিভাগ

কর্মকর্তার নাম

পদবী

ঠিকানা

টেলিফোন/ফ্যাক্স নম্বর

ই-মেইল

ক) সিভিল/ বৈদ্যুতিক

 

উপ-সহকারী প্রকৌশলী

 

 

 

খ) সিভিল/বেদ্যুতিক

 

উপ-সহকারী প্রকৌশলী

 

 

 

 

   অফিস সময়ের বাইরে এবং সরকারী ছুটির দিনে যে সক কর্মকর্তা কর্মচারীর সাথে যোগাযোগ করা হয়ঃ

 

পদবী

ফোন নম্বর

ক) অফিস সহকারী

উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী’র কার্যালয়ের অফিস ফোন

খ) উপ-সহকারী প্রকৌশলী

মোবাইল ফোন

 

   অভিযোগ প্রতিকারের পদ্ধতিঃ

       মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজের সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা/কর্মচারীগণ সকলেই যথাসময়ে স্ব স্ব এলাকার ভবন সমূহে বসবাসকাল/ ব্যবহারকারীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী সেবা প্রদানে সর্বদা সচেষ্ট থাকেন। তথ্যদি করো কোন অভিযোগ থাকলে ধাপ অনুযায়ী যথাক্রমে নিম্নে উল্লেখিত কর্মকর্তার দপ্তরে রক্ষিত টেলিফোন মৌখিকভাবে কিংবা রক্ষিত রেজিষ্টার-এ লিপিবদ্ধকরণের মাধ্যমে অভিযোগ প্রদান করতে পারবেন।

 

ক্রমিক নং

 নাম

পদবী

ঠিকানা

টেলিফোন/ফ্যাক্স নম্বর

ই-মেইল

ক)

 

নিঃ  প্রঃ

 

 

 

খ)

 

তঃ প্রঃ

 

 

 

গ)

 

অঃ প্রঃ প্রঃ

 

 

 

এছাড়া গণপূর্ত অধিদপ্তরের নিজস্ব ওয়েবসাইট (www.pwd.gov.bd) আছে যেখানে অভিযোগ প্রদান করা যাবে। তথ্য প্রযুক্তির এই সুযোগ সকলকে গ্রহণের জন্য স্বাগত জানানো হবে।

 

উপরোল্লিখিত স্বরসমূহ অভিযোগের প্রতিকার/সমস্যার সমাধান পেতে ব্যর্থ হলে কেন্দ্রীয়ভাবে পূর্ত ভবনে নির্বাহী প্রকৌশলী (ও এ্যান্ড এম)ুএর দপ্তরে (ফোন নং-৯৫৫৪৫৫৪, ই-মেইলঃ ee_om@pwd.gov.bd) সরকারী ভবনে বসকাসকারী /ব্যবহারীগণের অন্য সেবা প্রদানকারী/ অভিযোগ প্রতিকারের কেন্দ্র স্থাপন করা আছে যেখানে রেজিষ্টারে লিপিবদ্ধ/টেলিফোন/ই-মেইল/ফ্যাক্স/ ব্যক্তিগত সাক্ষাত-এর মাধ্যমে অভিযোগ সমস্যা জানানো যাবে (কক্ষ নং-৪৩০)।

 

কেন্দ্রীয়ভাবে গ্রহণকৃত সকল অভিযোগগুলো তিন দিনের মধ্যে আমনে নেয়া হয় এবং পরবর্তীতে প্রতিকারের কী ব্যবস্থা নেয় হয়েছে তা সাত কার্য দিবসের মধ্যে অভিযোগকারীকে জানিয়ে দেয় হয়।

 

   ভবন ব্যবহারকারী/ প্রত্যাশী সংস্থাা সাথে আলোচনা/ পরামর্শ কার্যক্রমঃ

(ক) গণপূর্ত অধিদপ্তরের সর্বদা ভবন ব্যবহারী/প্রত্যাশী সংস্থার পরামর্শকে স্বাগত জানাবে।

(খ) ভবন ব্যবহারকারী প্রত্যাশী সংস্থার প্রতিনিধির সাথে বছরে দুবার (জুলাই এবং এপ্রিল) সংশ্লিষ্ট তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী’র সভাপতিত্বে এবং বছরে একবার (ডিসেম্বর) অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী’র সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হবে। যারা উক্ত সভাতে অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক তারা একমাস পূর্বে সংশ্লিষ্ট নির্বাহী প্রকৌশলীর টেলিফোন অথবা ই-মেইল ঠিকানা অথবা ওয়েব সাইটের মাধ্যমে রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবেন।

(গ) চার্টারের উল্লেখিত কোন বিষয়ে ভবন ব্যবহারী/প্রত্যাশি সংস্থান কেউ আলোচনা করতে চাইলে গণপূর্ত অধিদপ্তর-এর ওয়েব সাইটে  (www.pwd.gov.bd) বিস্তারিত ঠিকানাসহ যোগাযোগ করতে পারবেন।

(ঘ) গণপূর্ত অধিদপ্তরের সিটিজেন চার্টার বাস্তবায়নের মাধ্যমে ভবন ব্যবহারকারী/প্রত্যাশী সংস্থা কতটুকু সুফল পেল তা প্রশ্নমালা বিতরণের মাধ্যমে প্রতিবছর মূল্যানের ব্যবস্থা করা হবে।

 

  বিভিন্ন মন্ত্রণালয় দপ্তরে সেক্টরের কার্যাদি সম্পর্কিত তথ্যাদিঃ

গণপূর্ত অধিদপ্তরের অধীন যে সকল নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করে থাকে তা সেক্টর অনুযায়ী কার্যাদেশের তারিখ, সমাপ্তির সম্ভাব্য তারিখ, প্রাপ্ত বরাদ্দ, অগ্রগতি, ব্যয়, সমস্যা (যদি থাকে) ইত্যাদি উল্লেখ পূর্বক Annual Procurement Plan (APP) সহ হালনাগাদ তথ্য ওয়েব সাইটে দেখার সুযোগ থাকছে। প্রত্যাশী সংস্থা প্রয়োজন অনুযায়ী তাৎক্ষনিকভাবে প্রকল্প সম্পর্কিত তথ্য দেখতে পারবেন এবং কোন জিঁজ্ঞাসা থাকলে ই-মেইল/ টেলিফোনের মাধ্যমে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী উন্নয়ন/সমন্বয়/মনিটরিং/পিপিসি/পেকু/প্রকল্প সার্কেল-১.২ এর মাধ্যমে আলোচনা করতে পারবেন।

 

        তাছাড়া কেন্দ্রীয়ভাবে  প্রতি বছর ডিসেম্বর/ জানুয়ারী মাসে প্রধান প্রকৌশলীর দপ্তরে প্রত্যাশি সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দের সাথে গণপূর্ত অধিদপ্তরের মাঠ-পর্যায়ে কর্মরত প্রকৌশলীদের মতবিনিময় সভার ব্যবস্থা করা হয়। সেখাবেও অধিদপ্তরের সেবা কার্যক্রমের উপর দীর্ঘ আলোচনা হয়।

 

    সরকারী পার্ক/ উদ্যান সম্পর্কিত বিষয়াদিঃ

গণপূর্ত অধিদপ্তরের অধীনস্থ সরকারী পার্ক/ উদ্যান এর ব্যাপারে  কোন মতামত/ অভিযোগ থাকলে টেলিফোন/ ই-মেইলের মাধ্যমে প্রধান বৃক্ষপালনকারীদের সাথে যোগাযোগ করা যায়, যার টেলিফোন নং-৯৫৬৯৩১০, ই-মেইল ঠিকানা ee_arbor@pwd.gov.bd. উপরোক্ত ঠিকানায় যোগাযোগ করে প্রতিকার /সন্তুষ্ট বা হলে পূর্ত ভবনে কেন্দ্রীয় অভিযোগ কেন্দ্রে যোগাযোগ করার ব্যবস্থা আছে।

 

     সরকারী জমি সংক্রান্ত কার্যাদিঃ

গণপূর্ত অধিদপ্তরের ধানমন্ডি আবাসিক এলাকা/ তেজগাঁও শিল্প এলাকা/ খিলগাঁও পূর্ণবাসন এলাকাসহ দেশের বিভিন্ন  এলাকার জমি/প্লট সংক্রান্ত বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের চাহিদা অনুযায়ী প্রতিবেদন প্রদান করে থাকে। এছাড়া গণপূর্ত অধিদপ্তর সরকারী জমি সংক্রান্ত নিম্নলিখিত কার্যাদিও সম্পন্ন করে থাকে।

 (ক) জমি হস্তান্তর (খ) ফ্ল্যাট হস্তান্ত (গ) বাণিজ্যিক স্পেস হস্তান্তর এবং (ঘ) বর্ণিত বিষয়গুলোর হস্তান্তর পরবর্তী নামজারী  (ঙ) মূল মালিকের মৃত্যু জনিত কারণে ওয়ারিশদের নামে  নামজারী (চ) অনুমোদিত প্লট/সড়ক বাণিজ্যিক ব্যবহারের  অনুমতি (ছ) আমমোক্তার নিয়োগ? গ্রহন (জ) অতিরিক্ত জমি দখল/ বরাদ্দ (ঝ) প্লট বিভাজন (ঞ) বন্ধক ইত্যাদি।

 

      গণপূর্ত অধিদপ্তরের অধীনে কোন জমি/প্লট  এর ব্যাপারে কারও কোন তথ্য জিজ্ঞাসা/সমস্যা থাকলে সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট গণপূর্ত বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী/নির্বাহী প্রকৌশলী-এর দপ্তরে যোগাযোগ করা যেতে পারে।

 

      এছাড়াও ঢাকা শহরের ধানমন্ডি আবাসিক এলাকার জন্য ঢাকা গণপূর্ত বিভাগ-২, তেজগাঁও শিল্প এলাকার প্লটের জন্য ঢাকা গণপূর্ত বিভাগ-৩, ঘিলগাঁও পূর্ণবাসন এলাকার প্লটের জন্য ঢাকা গণপূর্ত বিভাগ-৪, ঢাকা শহরের পরিত্যাক্ত সম্পত্তির জন্য ঢাকা গণপূর্ত রক্ষণাবেক্ষণ  বিভাগে যোগাযোগ করা যেতে পারে।

 

সহযোগিতা পেতে ব্যর্থ হলে সংশ্লিষ্ট তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী’র সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

 

তারপরও প্রতিকার /সন্তুষ্ট না হলে কেন্দ্রীয় অভিযোগ কেন্দ্রে লিখিতভাবে অভিযোগ  করতে হবে।

ছবি